top of page
  • Writer's picturemonoranjan das

X -Mas

বড়দিন মনোরঞ্জন দাস

মায়ের নিকট বায়না রেখেছিল ,

মাস খানেক ধরে দুজনে কত কি ভেবেছিল।

রিমঝিম ও জ্যানিস দুই ভাই-বোনে ,

মায়ের সাথে যাবে বাজারের দোকানে।


সেখানে গিয়ে বড়দিনের জন্য নতুন পোষাক কিনবে ,

তার সাথে তারা নতুন জুতোও কিনে আনবে।

এই নিয়ে নানা চিন্তা ভাবনা তারা করে ,

প্রভু যীশুর নিকট প্রার্থনা করে।






জোসেফের শরীর খুবই খারাপ ,

তাই মারিয়া একটা ধনী পরিবারে কাজ করে।

হঠাৎ একদিন প্রভু যীশুকে স্বপ্নে মারিয়া দেখতে পায় ,

তিনি বলেন মারিয়াকে সময় লাগবে।


তাই মারিয়া ধীরে ধীরে নিজেকে শক্ত করে তোলে ,

জীবনের বিভিন্ন পদক্ষেপে আশায় শুধু চলে।

জোসেফকে খুব কষ্টে সেবা করে যায় ,

আর প্রভু যীশুর প্রতি বিশ্বাস রেখেছে তাই।


এদিকে জোসেফ দিনের পর দিন বাঁচার আশা হারিয়ে ফেলে ,

শুধু প্রভুর প্রতি বিশ্বাসের নদী বয়ে চলে।

একদিন সে মানুষের জন্য কাজ করতো ,

সকলের সাথে ভালো ব্যবহার রাখতো।






কিন্তু হঠাৎ প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে আঘাত পায় ,

আর সেই থেকেই শরীর অসুস্থ হয়ে যায়।

কিন্তু তারা সকলেই প্রভুর প্রতি বিশ্বাস রেখেছে ,

ছেলেরা এখন বড়ো হয়েছে।


দুজনে মায়ের সাথে সংসারের কাজ করে ,

বাড়িতে পড়াশোনা করে।

বাবাকে দেখাশোনা করে ,

এইভাবেই তাদের জীবন অতিবাহিত করে।


এ বছর তাই তারা ঠিক করেছে ,

চার্চে গিয়ে মন-প্রাণ দিয়ে প্রার্থনা করেছে।

প্রভু যীশুকে আবেদন বারবার করেছে চার্চে গিয়ে ,

দুজনে বাবার জন্য মোমবাতি জ্বালিয়ে।


তবু মারিয়া বহু কষ্ট সহ্য করে আশা হারায়নি।

তবু অন্যের বাড়ি কাজ করে ,ভেঙে পড়েনি।

স্বামীকে সেবা করেই চলেছে ,

সন্তানদের প্ৰতিপালনও করেছে।






প্রভুর স্বপ্ন আজ মারিয়া আবার দেখেছে ,

এবার বড়দিনে চার্চে গিয়ে প্রার্থনা করায় ভালো হয়েছে।

তাই সন্তানদের নিয়ে মারিয়া বাজারে যাবে ,

সকলের জন্য নতুন পোষাক কিনবে।


বাড়ি তাদের আজ তাই যীশুর কৃপায় ,

বাড়িতে জ্বলে উঠবে হাজার তারার আলোর ঝর্ণায়।

আজ বড়দিনে যাবে ওরা সকলে একসাথে ,

প্রভুর শুভ জন্মদিনে চার্চে মোমবাতি জ্বালাবে সবাই নিজের হাতে।






প্রভু যীশুর আশীর্বাদে ওদের জীবনে আসুক শান্তি ফিরে ,

যীশুর ভালোবাসায় জোসেফের জীবনের নৌকো আসুক তীরে।

সকলকে নিয়ে বাঁচুক ঘিরে ,

প্রভু যীশুর আশীষ থাকে মাথার উপরে।

-------******--------

Thanks for supporting me. Please comment, share and follow me.



When Christmas is coming.

0 views0 comments

Recent Posts

See All

RMS Titanic

Titanic Monoranjan Das The biggest and most gorgeous ship, In the whole world. By the Britain Government, Started in the nineteenth century. They wanted to discover, A historical biggest and most spe

Shyam Rai

মনের মিল মনোরঞ্জন দাস তোমার সাথে আমার মনের থাকে যদি মিল , কোনোদিনই তুমি ভুল করে দিও না মনের দরজায় খিল। মনের মানুষ খুঁজে পাওয়া এই জগতে কঠিন , মনের পেলে তুমি সারা জীবন স্বাধীন। মনের কথা জানতে হলে মন-ম

About Marrige

পাকা দেখা মনোরঞ্জন দাস গৌরাঙ্গ কেমন আছো তুমি , খুব ভালো আছি আমি। তা আজ হঠাৎ আমাদের পাড়ায় , একটা বিশেষ কাজে ছুটছি এ পাড়ায় ও পাড়ায়। কেন কী এমন হল ভাই ? একটু আপনার সহযোগিতা চাই। বলুন না কী দরকার ? এসেছ

Komen


bottom of page